Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!
Saturday , October 19 2019

সুনির্দিষ্ট প্রতিকার আইনের ১২ এবং ২১(ক) ধারা মোতাবেক চুক্তি পালনের মোকদ্দমা সংক্রান্ত ড্রাফটিং

বিঃদ্রঃ নিম্নে ড্রাফটিং এর কাল্পনিক তথ্য পর্যাক্রমিকভাবে উপস্থাপন করা হল এবং এই তথ্যগুলো কিভাবে সাজিয়ে লিখতে হয় তা পিডিএফ ফাইলের মাধ্যমে উপস্থাপন করা হল। আশাকরি সকলেই উপকৃত হবেন।

কোর্টঃ মোকামঃ বিজ্ঞ সহকারী জজ আদালত, ঢাকা।

সূত্রঃ স্বত্ব মোকদ্দমা নং ——/২০১৬

ধারাঃ সুনির্দিষ্ট প্রতিকার আইনের ১২ এবং ২১(ক) ধারা মোতাবেক চুক্তি পালনের মোকদ্দমা।

বাদীঃ জাফর, বর্তমান ঠিকানাঃ ————————-, স্থায়ী ঠিকানাঃ —————————-।

বিবাদীঃ সাদেক, বর্তমান ঠিকানাঃ —————————, স্থায়ী ঠিকানাঃ ———————– ।

মোকদ্দমার তায়দাদঃ ১,৫০,০০০/- টাকা। 

নিবেদনঃ উপরোক্ত বাদী পক্ষের বিনীত নিবেদন এই যে,

১। বাদী বাংলাদেশের একজন স্থায়ী নাগরিক এবং আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল বটে। অন্যদিকে বিবাদী এলাকার প্রভাবশালী ও দখলবাজ পরধনলোভী বটে।

২। নিম্ন তফসিল বর্ণিত সম্পত্তি বিবাদীর স্বত্বীয় খাস দখলীয় সম্পত্তি এবং সেখানে বিবাদীর বসত বাড়ি রয়েছে। উক্ত বসত বাড়িতে বিবাদী পরিবারবর্গ নিয়ে ৩০ বছর যাবত বসবাস করে আসছে।

৩। অত্র মোকদ্দমার বাদী এবং বিবাদী উভয়েই প্রতিবেশী এবং পশাপাশি নিজস্ব জমি ও বাড়ির মালিক যা তফসিলে বর্ণিত হয়েছে। উভয়ের জমি রাজউকের নিয়ন্ত্রণাধীন এবং অত্র আদালতের এখতিয়ারাধীন।

৪। বিগত —— তারিখে বিবাদী তফসিল বর্ণিত সম্পত্তি বিক্রয়ের ইচ্ছা প্রকাশ করে এবং সদ্বিশ^াসে বাদী উক্ত সম্পত্তি ক্রয়ের আগ্রহ প্রকাশ করে।

৫। বিগত —— তারিখে বিবাদী তফসিল বর্ণিত সম্পত্তি ১,৫০,০০০/- মূল্য নির্ধারণে বাদীর সাথে রেজিষ্ট্রি বায়না দলিল সম্পাদন করে এবং বায়না বাবদ ৫০,০০০/- টাকা বাদী বিবাদীকে প্রদান করে।

৬। বায়না চুক্তির শর্ত মোতাবেক ৬ মাসের মধ্যে বাদী বাকী ১,০০,০০০/- টাকা বিবাদী কর্তৃক গ্রহণ পূর্বক বাদীর পক্ষে জমির সাব কবলা দলিল রেজিষ্ট্রি করে দেওয়ার জন্য বারবার তাগাদা দেয়।

৭। —- তারিখে বাদী বিশ^স্তসূত্রে জানতে পারে যে, বিবাদী একই জমি অন্য ব্যক্তির নিকট বিক্রয়ের চেষ্টা করছে যা সম্পূর্ণ বেআইনী ও প্রতারণার শামিল।

৮। বাদীর পক্ষে জমি সাব কবলা দলিল রেজিষ্ট্রি করে দেওয়ার জন্য বারবার তাগাদা দেওয়ার কারণে বিবাদী সর্বশেষ —– তারিখে বায়না চুক্তি পালনে অস্বীকৃতি জানায় এবং এই কারণে অত্র মোকদ্দমা দায়েরের কারণ সৃষ্টি হয়।

৯। অত্র মোকদ্দমাটি একটি চুক্তি পালনের মোকদ্দমা এবং বিবাদী কর্তৃক বায়না চুক্তির শর্ত ভঙ্গের ফলে বাদীর যে অপূরণীয় ক্ষতি হবে তা অর্থের মাধ্যমে তার পর্যাপ্ত প্রতিকার সম্ভব নয়।

১০। মোকদ্দমার তায়দাদ নির্ধারণ করে তার উপর কোর্ট ফি প্রদানপূর্বক এখতিয়ারাধীন অত্র আদালতে মোকদ্দমাটি দায়ের করা হল।

১১। শুনানীকালে অন্যান্য বক্তব্য ও যাবতীয় তথ্য উস্থাপন করা হবে।

প্রার্থনাঃ অতএব, প্রার্থনা এই যে, ক) সুনির্দিষ্ট চুক্তি প্রবলের ডিক্রি বাদীর অনুকূলে জারি করতে; খ) বাদীর অনুকূলে কবলা দলিল সম্পাদন ও রেজিষ্ট্রি করে দেওয়ার আদেশ দিতে; গ) বাদীকে তফসিল বর্ণিত সম্পত্তির নিষ্কন্টক খাস দখল প্রদানের আদেশ দিতে; ঘ) মোকদ্দমার খরচ বিবাদীর বিরুদ্ধে ডিক্রি দিতে; ঙ) মোকদ্দমার অবস্থাদৃষ্টে বাদী অন্য কোন প্রতিকার পেতে হকদার হলে বাদীকে তা মঞ্জুর করতে আদালতের মর্জি হয়। এবং উক্তরূপ আদেশের জন্য বাদী/দরখাস্তকারী চিরকৃতজ্ঞ থাকবে।

সম্পত্তির তফসিলঃ ——- জেলার —— থানাধীন —- মৌজার আর.এস ——– নং খতিয়ানের ——– দাগের ——- শতক জমি  লিপিবদ্ধ হয়েছে। অদ্য তাং —————।

চৌহদ্দিঃ

উত্তরেঃ ——————————-

দক্ষিণেঃ ——————————-

পূর্বেঃ ——————————-

পশ্চিমেঃ ——————————-

সত্যপাঠঃ আমি ————- পিতাঃ ———–, বর্তমান ঠিকানাঃ —————————, স্থায়ী ঠিকানাঃ —————————–, বয়সঃ ——, পেশাঃ ——–ধর্মঃ ———, জাতীয়তাঃ বাংলাদেশী। এই মর্মে ঘোষণা করছি যে, উপরোক্ত বিবরণসমূহ আমার জ্ঞানমতে সত্য এবং সঠিক জেনে নিজ নাম স্বাক্ষর করলাম।

(সত্যপাঠকারীর স্বাক্ষর)

Fullscreen Mode

Check Also

ফৌজদারী কার্যবিধি আইনের ৪০৮ ধারার বিধান মোতাবেক একটি লিগ্যাল ড্রাফটিং

ড্রাফটিং এর বিষয়ঃ ফৌজদারী কার্যবিধি আইনের ৪০৮ ধারার বিধান মোতাবেক একটি লিগ্যাল ড্রাফটিং সাবলীলভাবে উপস্থাপন …