Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!
Legal Study
Wednesday , January 23 2019

বাংলাদেশ বার কাউন্সিল পরীক্ষার প্রশ্ন ব্যাংক [লিখিত পরীক্ষাঃ ২৭শে আগষ্ট, ২০০৪]

বার কাউন্সিল পরীক্ষার প্রস্তুতি
অ্যাডভোকেট তালিকাভুক্তির লিখিত পরীক্ষা, ২০০৪
(পরীক্ষাঃ ২৭শে আগষ্ট, ২০০৪)
সময়ঃ ৪ ঘন্টা, পূর্ণমানঃ ১০০

দেওয়ানী কার্যবিধি, ১৯০৮

প্রশ্ন-১। যে কোন ৪টির সংজ্ঞা দিনঃ ক) রেস্-জুডিকাটা; খ) আদেশ এবং ডিক্রী; গ) রায়ে নির্ণীত দেনাদার; ঘ) রায়ের পূর্বে ক্রোক; ঙ) কজ অব একশন; চ) ইস্যু।

প্রশ্ন-২। মামলার কোন পর্যায় পর্যন্ত আরজি সংশোধনের আবেদন করা যায়? আপীল চলাকালীন সময়ে কী আরজি সংশোধনের প্রার্থনা করা যায়? মামলার আরজি সংশোধনের জন্য একটি দরখাস্ত মুসাবিদা করুন।

প্রশ্ন-৩। ক) আদালত কখন অন্তর্নিহিত ক্ষমতা প্রয়োগ করিতে পারেন? আলোচনা করুন।

খ) করিম ঢাকার জজ আদালতে তাহার জমির স্বত্ব ঘোষণা ও দখল সাব্যস্তকরণের (confirmation) জন্য তাহার প্রতিবেশী রহিমের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পর রহিম তাহাকে উক্ত জমি হইতে উচ্ছেদের হুমকি দেয়। যথাযথ আইনের উদ্ধৃতি দিয়া অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞার জন্য একটি দরখাস্ত মুসাবিদা করুন।

সুনির্দিষ্ট প্রতিকার আইন, ১৮৭৭

প্রশ্ন-৪। পরশের দখলে একখণ্ড পৈত্রিক জমি ছিল। সে তাহার প্রতিবেশী দ্বারা জমিটি হতে বেদখল হয়। প্রতিবেশী দাবী করে যে, সে পরেশের পিতার নিকট হইতে জমিটি খরিদ করিয়াছে। পরেশের ভাষ্য যে, কবলা দলিলটি ভূয়া। কোন ধরণের মামলা দাখিল করিতে হইবে পরেশকে উপদেশ দিন এবং যথাযথ আইনের উল্লেখ করিয়া একটি আরজি মুসাবিদা করুন।

প্রশ্ন-৫। রনেশের সংগ্রহে জয়নাল আবেদীনের একটি ছবি আছে। সে বিক্রয়এর জন্য জামালের সহিত চুক্তিবদ্ধ হয়। জামাল ছবিটির জন্য সমুদয় মূল্য প্রদান করেন কিন্তু রনেশ ছবিটি সরবরাহ করিতে অস্বীকৃতি জানায়। জামাল ছবিটির সরবরাহের জন্য রমেশের বিরুদ্ধে কি মামলা করিতে পারেন? সুনির্দিষ্ট আইন উদ্ধৃতিসহ ব্যাখ্যা করুন।

প্রশ্ন-৬। আছমা একজন দরিদ্র মহিলা। সে ৪ শতাংশ জমিতে দখলে ছিল কিন্তু উক্ত জমিতে তাহার কোন স্বত্ব নাই। তাহার প্রতিবেশী রফিক বিত্তবান ও প্রভাবশালী। সে উক্ত জমিটি প্রকৃত মালিকের নিকট হইতে ক্রয় করার অজুহাতে ২৫শে জুন, ২০০৪ তারিখে আছমাকে বেদখল করে। আছমা এ ব্যাপারে আপনার উপদেশ চায়। সে কোন আইনের বিধানবলে কি প্রতিকার পাইতে পারে তাহা উল্লেখপূর্বক একটি আরজি মুসাবিদা করুন।

ফৌজদারী কার্যবিধি, ১৮৯৮

প্রশ্ন-৭। ক) জামিনের দরখাস্ত দাখিল সংক্রান্ত আইনের বিধানাবলী উল্লেখ করুন।

খ) দণ্ডবিধির ৩৭৬ ধারার অপরাধে গ্রেপ্তারকৃত আসামীর জামিনের দরখাস্ত সম্প্রতি ঢাকার চীফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট নাকচ করেন। তাহার জামিনের জন্য উপযুক্ত আদালতে দায়েরের নিমিত্তে একটি দরখাস্ত মুসাবিদা করুন।

প্রশ্ন-৮। রতন আইনের সহায়তার জন্য আপনাকে জানায় যে তাহার প্রতিবেশী করিমের সহিত তাহার বাড়ির সীমানায় অবস্থিত তাল গাছের দখল সংক্রান্ত বিষয়ে ঝগড়া হওয়ার কারণে তাহাকে আঘাত করিয়া বাম হাতের বৃদ্ধাঙ্গুলি কাটিয়া ফেলিয়া গুরুতর জখম করে। আপনি তাহাকে জি. আর. অথবা সি, আর কেইসে প্রতিকার পাওয়ার বিষয়ে পরামর্শ দিন-

ক) জি. আর. অথবা সি. আর. কেইসের জন্য আপনার মক্কেল কি পদক্ষেপ নিবেদন? একটি কাল্পনিক ঘটনা ও ইহার প্রকৃতি বর্ণনা করিয়া সংক্ষেপে একটি এজাহার এবং একটি নালিশী মামলা মুসাবিদা করুন। পুলিশের রিপোর্টে অথবা নালিশী মামলা পাওয়ার পর ম্যাজিস্ট্রেট কি কি পদক্ষেপ নিবেন?

খ) নারাজী দরখাস্ত কি? কিভাবে একজন ম্যাজিস্ট্রেট নারাজী দরখাস্ত নিষ্পত্তি করেন এবং আইনের কোন ধারায় একজন ম্যাজিস্ট্রেট অভিযোগকারীকে পরীক্ষা করেন? বর্ণনা করুন।

প্রশ্ন-৯। করিম তাহার স্ত্রী ও দুইটি নাবালিকা কন্যার ভরণপোষণের ব্যবস্থা না করিয়া তাহাদিগকে পরিত্যাগ করিয়া চলিয়া যায়। তাহার স্ত্রী আছমা প্রতিকারের জন্য আপনার নিকট আসেন। আছমা ও তাহার দুই নাবালিকা কন্যার ভরণপোষণের আবেদন করিয়া ম্যাজিস্ট্রেট বরাবরে একটি দরখাস্ত মুসাবিদা করুন। আছমা করিমকে তালাকে দিয়া পুনরায় বিবাহ করার পরও কি করিম আছমা ও তাহার কন্যাদের ভরণপোষণের জন্য দায়ী থাকিবে?

দন্ডবিধি, ১৮৬০

প্রশ্ন-১০। একজন ট্রাক ড্রাইভার বস্তিতে থাকে। একদিন সে অসময়ে বাড়িতে ফিরে তাহার ২০ বৎসর বয়স্ক ছোট বোনকে প্রতিবেশী এক যুবকের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ ও আবেগপ্রবণ অবস্থায় দেখিতে পায়। সে রাগান্বিত হইয়া উঠে এবং উভয়কে দাও-এর আঘাতে হত্যা করে এবং বেপরোয়াভাবে ট্রাক চালাইয়া বাড়ি হইতে বাহির হইয়া যাওয়ার পথে পথচারী একজন মহিলাকে চাপা দিয়া যায়। তাহাকে জোড়া খুনের জন্য দণ্ডবিধির ৩০২ ধারার অভিযুক্ত করা হয় এবং রাস্তায় মহিলাকে চাপা দিয়া হত্যার জন্য দণ্ডবিধির ৩০৪ ধারায় অভিযুক্ত করা হয়। ট্রাক ড্রাইভার তাহার পক্ষ সমর্থনের জন্য আপনার নিকট আসে। আসামীর সমর্থনে আপনার যুক্তি কি হইবে? কারণ ও হেতুসমূহ বর্ণনা করুন।

প্রশ্ন-১১। ক) জনৈক রফিক নিহত হয়। পুলিশ তদন্তকালে দেখে যে, তাহার প্রতিবেশী হামিদের সাথে তাহার জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ ছিল। ঘটনার পূর্ব রাত্রে স্থানীয় একটি চিংড়ী ঘেরে হামিদ, হাশেম ও রবিউলকে বসিয়া থাকতে দেখা গিয়াছে। পুলিশ আরও জানিতে পারে যে, হামিদের গড ফাদার, এক গ্রাম্য মাতব্বর, রফিককে দুনিয়া থেকে সরাইয়া দেওয়ার জন্য হামিদকে উপদেশ দেয়। পরের দিন হামিদ, হাশেম ও রবিউল তাহাদের সহযোগিতার জন্য কাসেম ও রহমানকে ভাড়া করে এবং রফিক যখন জমি চাষ করিতেছিল সেই সময় তাহারা অস্ত্র সজ্জিত হইয়া বিরোধীয় জমিতে যায়। তখন হামিদের নির্দেশে হাশেম ও রবিউল রফিককে মাটিতে ধাক্কা দিয়া ফেলিয়া দেয় এবং হাশেম রফিকের দেহে টেটা দিয়া আঘাত করে। ফলে রফিক ঐ আঘাতের কারণে মারা যায়। এই ঘটনাতে কিভাবে আসামীদের অভিযুক্ত করা যায়? দণ্ডবিধির ৩৪, ১৪৯, ১০৯ ও ১২০ বি ধারার উল্লেখে উত্তর লিখুন।

খ) দণ্ডবিধির ৩৪ ও ১৪৯ ধারার মূল পার্থক্যগুলি বর্ণনা করুন।

প্রশ্ন-১২। যে কোন ৪টির সংজ্ঞা লিখুনঃ ক) প্রতারণা ও আত্মসাৎ; খ) সাধারণ উদ্দেশ্য ও সাধারণ অভিপ্রায়; গ) বেআইনী আটন রাখা; ঘ) অপহরণ ও অপবাহন; ঙ) ক্রিমিনাল ব্রীচ ট্রাস্ট এবং ডিজঅনেস্ট মিস এপ্রোপ্রিয়েশন; চ) মিসচীফ; ছ) ডাকাতি ও দস্যুতা।

তামাদি আইন, ১৯০৮

প্রশ্ন-১৩। ক) কোন ধরনের মোকদ্দমায় তামাদি আইন, ১৯০৮ এর ৫ ধারা মতে তামাদি সীমা বৃদ্ধির জন্য আবেদন করা যায়?

খ) করিম আপনার নিকট আসিয়া এক রায়ের বিরুদ্ধে আপীল করিতে চায় এবং বলে যে, গুরুতর অসুস্থতার কারণে সে ইতোপূর্বে আসিতে পারে নাই। আপনি দেখেন যে, আপীল দায়ের করিবার সময়সীমা ইতিমধ্যে অতিক্রান্ত হইয়া গিয়াছে এবং তাহার আপীল তামাদি হইয়া গিয়াছে। আপনি কোন আইনবলে তামাদি সীমা বৃদ্ধির আবদেন করিতে পারেন?

গ) একটি মোকদ্দমা চূড়ান্ত শুনানীর জন্য ২০-০৭-২০০৪ ধার্য্য ছিল। এই দিন শুনানীর জন্য ডাকা হইলে পক্ষদ্বয়কে অনুপস্থিত পাওয়া যায় এবং আদালত মোকদ্দমা ডিসমিস করে। বাদী ডিসমিস আদেশ রহিত করার জন্য আপনার নিকট আসে কিন্তু আপনি দেখেন যে, উক্ত দরখাস্ত দায়ের করার সময়সীমা ইতিমধ্যে অতিক্রান্ত হইয়াছে। তামাদি সীমা বৃদ্ধি কারার জন্য একটি দরখাস্ত মুসাবিদা করুন।

সাক্ষ্য আইন, ১৮৭২

প্রশ্ন-১৪। ক) নিম্নলিখিত বিষয়ের সংজ্ঞা লিখুন ও পার্থক্য বর্ণনা করুনঃ ১) স্বীকার, ২) স্বীকারোক্তি, ৩) মৃত্যুকালীন ঘোষণা।

খ) স্বীকারোক্তি কি আসামীকে শাস্তি প্রদানের একমাত্র ভিত্তি হইতে পারে? যদি হয় কখন? পুলিশের সম্মুখে কৃত স্বীকারোক্তি কি সাক্ষ্য আইনে গ্রহণযোগ্য, যদি হয়, কতদূর পর্যন্ত এবং কোন পরিস্থিতিতে? পুলিশের নিকট প্রদত্ত মৃত্যুকালীন ঘোষণা কি সাক্ষ্য আইনে গ্রহণযোগ্য? কোন পরিস্থিতিতে মৃত্যুকালীন ঘোষণা গ্রহণযোগ্য?

গ) আইনের কোন বিধান মতে স্বীকারোক্তি এবং আসামীদের স্বীকারোক্তি রেকর্ড করা হয়? কোন ম্যাজিস্ট্রেট এই ধরণের উক্ত রেকর্ড করিতে পারে? সর্বক্ষেত্রেই কি ম্যাজিস্ট্রেটকে তাহার রেকর্ডকৃত উক্তি প্রমাণের জন্য পরীক্ষা করিতে হয়? (১) ম্যাজিস্ট্রেটের নিকট স্বীকারোক্তি, (২) পুলিশের নিকট স্বীকারোক্তি ও (৩) এক্সট্রা জুডিসিয়াল স্বীকারোক্তির আইনগত ফলাফল কি?

প্রশ্ন-১৫। ক) প্রমাণের ভার বলিতে কি বুঝায়? প্রমাণের দায়িত্ব কি কোন সময় পরিবর্তিত হয়? কখন?

খ) ধানমন্ডির একটি বাড়ির মালিক মিঃ ধীরেন তাহার বাড়ি হইতে ভাড়াটিয়া মিঃ নরেনকে ভাড়া পরিশোধ না করার কারণে উচ্ছেদের মামলা করেন। নরেন আত্মপক্ষ সমর্থনে বলেন যে, ভাড়াটিয়া হিসাবে আসার পর তিনি ধীরেনের নিকট হইতে বাড়িটি ক্রয়ের জন্য আংশিক মূল্য প্রদানে বায়নাপত্রের ভিত্তিতে বর্তমানে দখল বুঝিয়া পাইয়া অবস্থান করিতেছেন। নরনের অবস্থান সম্পর্কে প্রমাণের ভার কাহার উপর বর্তায়?

বাংলাদেশ বার কাউন্সিল আদেশ, ১৯৭২

প্রশ্ন-১৬। একজন এডভোকেট যিনি অগ্রণী ব্যাংক প্যানেল ল’ইয়ার হিসাবে তাহদের মামলা দায়ের ও পরিচালনা করিতেন। ২,০০,০০০/- টাকা আদায়ের একটি মোকদ্দমা ব্যাংকের পক্ষে ডিক্রি হয়। ব্যাংক এডভোকেট সাহেবকে ডিক্রি কার্যকর করার জন্য সংশ্লিষ্ট জমি ক্রয় করিতে অনুরোধ করে। তদানুযায়ী ডিক্রি কার্যকরণ নিলাম হইতে এডভোকেট সাহেব তাঁর চার সন্তানের নামে চারটি কবলা দলিলমূলে সম্পত্তি খরিদ করে। ক্যাননস অব প্রফেশনাল কনডাক্ট এন্ড এটিকুইটি এর চ্যাপ্টার ২ এর ৫ নং ধারা অনুযায়ী এডভোকেট সাহেব পেশাগত অসদাচরণ করিয়াছেন কিনা বর্ণনা করুন।

প্রশ্ন-১৭। একজন দু®কৃতিকারী দ্বারা বার সমিতির একজন সদস্য প্রহৃত হয় বলিয়া অভিযোগ করা হয়। ফলে আসামীকে কোনরূপ আইনগত সহায়তা না দেওয়ার জন্য বার সমিতি একটি সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। আসামীর আত্মীয়গণ তাদের আত্মীয়দের মধ্যে একজন আইনজীবী খুঁজিয়া পান, তিনি উক্ত বার সমিতির একজন সদস্য। তাহাকে মামলাটি গ্রহণ করার অনুরোধ করে। উক্ত আইনজীবী জনাব এস. জামান বারের সিদ্ধান্ত ভঙ্গ করিয়া আসামীর পক্ষে কোর্টে হাজির হন। বার সমিতি জনাব জামানকে উক্ত অভিযোগের কারণ দর্শাইতে বলে। আপনি উক্ত জামান সাহেবের বন্ধু। বিধায় তাহার পক্ষে ওকালতি করিতে সম্মত হন। সমিতির সেন্টিমেন্ট উপলব্ধি করিয়া আপনি একটি লিখিত যুক্তি প্রদর্শন করুন যাহাতে বারে কোন ফল না পাইলে বার কাউন্সিলে আপীল দায়ের করার ব্যাপারে তাহা সহায়ক হয়। এই বিষয়ে একটি লিখিত যুক্তিতর্ক মুসাবিদা করুন।

প্রশ্ন-১৮। পেশাগত আচরণবিধি অনুযায়ী আদালতের প্রতি একজন এডভোকেটের কর্তব্যসমূহ বর্ণনা করুন।

বিষয় নির্বাচন করুন
দেওয়ানী কার্যবিধিসুনির্দিষ্ট প্রতিকারতামাদি আইনফৌজদারী কার্যবিধি
দন্ডবিধিসাক্ষ্য আইনবার কাউন্সিলসমাপ্ত

Check Also

বার কাউন্সিল পরীক্ষার জন্য দন্ডবিধির এম.সি.কিউ অনুশীলন-৩২

বিষয়ভিত্তিক অনুশীলন-৩২