Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!
Thursday , June 20 2019

বাংলাদেশ বার কাউন্সিল পরীক্ষার প্রশ্ন ব্যাংক [লিখিত পরীক্ষাঃ ২৯শে ফেব্রুয়ারী, ২০০৮]

বার কাউন্সিল পরীক্ষার প্রস্তুতি
অ্যাডভোকেট তালিকাভুক্তির লিখিত পরীক্ষা, ২০০৮
(পরীক্ষাঃ ২৯শে ফেব্রুয়ারী, ২০০৮)
সময়ঃ ৪ ঘন্টা, পূর্ণমানঃ ১০০

দেওয়ানী কার্যবিধি, ১৯০৮

প্রশ্ন-১। রেস জুডিকাটা বলিতে কি বুঝায় এবং রেস জুডিকাটা প্রয়োগ করিতে হইলে কি কি শর্ত পালিত হতে হবে উদাহরণসহ আলোচনা করুন।

প্রশ্ন-২। মামলার কোন পর্যায় পর্যন্ত আরজি সংশোধনের দরখাস্ত করা যায় এবং কোন পরিস্থিতিতে আদালত আরজি সংশোধনের দরখাস্ত না-মঞ্জুর করিবেন? আলোচনা করুন।

প্রশ্ন-৩। ক) একটি মামলার বাদী আপনার মক্কেল। তিনি আপনাকে পরামর্শ দেন যে, রায়ের পূর্বে বিবাদীর সম্পত্তি ক্রোকের আদেশ হওয়া দরকার। আপনার মক্কেল তার পরামর্শের সমর্থনে যুক্তি প্রদর্শন করে। আপনিও মনে করে যে, ক্রোক আদেশের জন্য আবেদন করা যায়। বিবাদীর সম্পত্তি রায়ের আগে ক্রোকের আবেদন প্রার্থনা করে একটি দরখাস্ত মুসাবিদা করুন।

খ) উপরোক্ত মোকদ্দমায় আপনার আবেদনের সমর্থনে আদালতে কি কি কারণ প্রদর্শন করবেন?

সুনির্দিষ্ট প্রতিকার আইন, ১৮৭৭

প্রশ্ন-৪। ক) এক ব্যক্তি আপনার নিকট এসে জানায় যে, তাকে তার সম্পত্তি থেকে বে-দখল করা হয়েছে এবং সে উক্ত সম্পত্তি পুনরুদ্ধার করতে চায়। আপনি সুনির্দিষ্ট প্রতিকার আইন, ১৮৭৭ এর ৯ ধারা মোতাবেক উক্ত সম্পত্তি দখল পুনরুদ্ধারের জন্য মামলা দায়েরের সিদ্ধান্ত নিলেন। আপনি তার কাছ থেকে কি কি বিষয় জেনে নিবেন এবং আপনার আরজিতে অন্তর্ভূক্ত করবেন?

খ) উপরোক্ত মোকদ্দমাতে বিবাদী তার লিখিত বর্ণনায় উল্লেখ করে যে, বিরোধীয় সম্পত্তিতে তার স্বত্ব রয়েছে কারণ তিনি উক্ত সম্পত্তির প্রকৃত মালিকের নিকট হতে ক্রয় করেছেন। বিবাদীর এই যুক্তি আপনি কিভাবে মূল্যায়ন করবেন?

প্রশ্ন-৫। ক) আপনার মক্কেলের প্রতিবেশী আপনার মক্কেলের বাড়ীর পূর্ব পার্শ্বে রাজউক এর নিয়ম মাফিক প্রয়োজনীয় জায়গা না ছাড়িয়া প্রাচীর নির্মাণ করে এবং দেওয়াল এত উঁচু করে যে, আপনার মক্কেলের বাড়ীতে আলো প্রবেশে বাধা সৃষ্টি করে। আপনার মক্কেল দেওয়ানী আদালত হইতে সুনির্দিষ্ট প্রতিকার আইনের কোন ধারায় কি প্রতিকার পাইতে পারেন? সংক্ষেপে একটি আরজি মুসাবিদা করুন। মুসাবিদার জন্য আপনি বাদী বিবাদীর নাম, ঠিকানা ইচ্ছামত বর্ণনা করিতে পারেন।

প্রশ্ন-৬। চুক্তি প্রবলের প্রতিকার বলিতে কি বুঝায়? কোন কোন অবস্থায় আদালত চুক্তি প্রবলের প্রতিকার মঞ্জুর করিবে না?

ফৌজদারী কার্যবিধি, ১৮৯৮

প্রশ্ন-৭। তদন্ত বলিতে কি বুঝেন? ফৌজদারী কার্যবিধির বিধান অনুযায়ী পুলিশের তদন্ত সংক্রান্ত ক্ষমতা আলোচনা কর। পুলিশ কি সম্পূরক চার্জশীট দাখিল করিতে পারে?

প্রশ্ন-৮। ক) দণ্ডবিধি আইন, ১৮৬০ এর ৩০৪ ধারায় অভিযুক্ত আসামীর জন্য জামিনের দরখাস্ত মুসাবিদা করুন। আপনার ইচ্ছামত আদালতের নাম এবং পক্ষগণের নাম ব্যবহার করুন। কজ টাইটেলে সংশ্লিষ্ট ধারাও উল্লেখ করুন।

খ) বেলবন্ডের জন্য আদালত অধিক পরিমাণে অর্থ, ধরা যাক ১ লক্ষ টাকা ধার্য করেছে। আপনি বেলবন্ডের অর্থ যুক্তিসঙ্গত হারে কমানোর জন্য যুক্তি প্রদর্শন করে বেলবন্ডের অর্থ কমানোর জন্য একটি দরখাস্ত মুসাবিদা করুন।

প্রশ্ন-৯। ক) ফৌজদারী কার্যবিধি আইনের ১৪৫ ধারার বিধান মতে প্রসিডিং রুজু করার জন্য অপরিহার্য শর্ত কি?

খ) সাক্ষ্য প্রমাণ পর্যালোচনার পর ম্যাজিস্ট্রেট সাহেব যদি দেখতে পান যে, বর্তমানে মামলার ভূমি নিয়ে শান্তিভঙ্গের কোন আশঙ্কা নেই, তাহলে তিনি কি ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন?

গ) সাক্ষ্য প্রমাণ, মৌখিক এবং দালিলিক পর্যালোচনার পর ম্যাজিস্ট্রেট যদি বিবদমান পক্ষদ্বয়ের মধ্যে বিরোধীয় ভূমিতে কোন পক্ষে দখল আছে তা সাব্যস্ত করতে ব্যর্থ হন তাহলে তিনি কি করবেন?

ঘ) সাক্ষ্য প্রমাণ পর্যালোচনার পর ম্যাজিস্ট্রেট সাহেব যদি দেখতে পান যে, প্রসিডিং রুজু করার ৬০ দিনের মধ্যে মামলার ভূমিতে প্রথম পক্ষের কোন দখল ছিল না, তাহলে প্রসিডিং পরিণতি কি হবে?

দন্ডবিধি, ১৮৬০

প্রশ্ন-১০। সাধারণ অভিপ্রায় ও সাধারণ উদ্দেশ্যের মধ্যে পার্থক্য উদাহরণসহ আলোচনা করুন।

প্রশ্ন-১১। ক) অপরাধ সংঘটন সহায়তা বলতে আপনি কি বোঝেন? কোন আইনের কোন ধারায় অপরাধ সংঘটনের সহায়তার শাস্তির বিধান আছে? আপরাধ সংঘটনে সহায়তার জন্য আইনে কি পরিমাণ শাস্তির বিধান আছে?

খ) A, B এবং C একত্রে Z কে বিষ প্রয়োগে হত্যা করার জন্য ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়। ঐ ষড়যন্ত্র অনুযায়ী A বিষ সংগ্রহের জন্য B কে প্রয়োজনীয় অর্থ দেয়। B বিষ সংগ্রহ করে A কে দেয়। A এবং B এর অনুপস্থিতিতে C ঐ বিষ Z কে খাইয়ে তার মৃত্যু ঘটায়।ঘটনার প্রেক্ষিতে Z -এর মৃত্যুর জন্য উক্ত A, B এবং C এর দায়-দায়িত্ব বিশ্লেষণ করুন।

প্রশ্ন-১২। চুরি, বলপূর্বক আদায়, দস্যুতা ও ডাকাতির সংজ্ঞা কি? চুরি ও বলপূর্বক আদায় এবং দস্যুতা ও ডাকাতির মধ্যে পার্থক্য উদাহরণসহ আলোচনা কর।

তামাদি আইন, ১৯০৮

প্রশ্ন-১৩। কোন কোন ক্ষেত্রে এবং কি কি ধরনের আদালত মামলা রুজু করিতে বিলম্ব প্রার্থনা করিতে পারেন তাহা আলোচনা করুন।

প্রশ্ন-১৪। ক) কোন মোকদ্দমা চূড়ান্ত নিষ্পত্তির জন্য ধার্য দিনে বাদী হঠাৎ অসুস্থ হয়ে আদালতে উপস্থিত হতে না পারায় বিবাদীগণের উপস্থিতিতে মামলাটি বাদীর ঐ জনিত কারণে খারিজ হয়ে থাকে। মামলা খারিজের প্রায় তিন মাস পরে বাদী আপনার কাছে এসে ঐ একতরফা খারিজের আদেশের রদ ও রহিতক্রমে মোকদ্দমা পূনর্জীবিত করার ব্যবস্থা নিতে বলে। তামাদি মওকুফের জন্য আদালতকে সন্তুষ্ট করতে আপনি কোন কোন বিষয়ের উপর গুরুত্ব আরোপ করবেন?

খ) যদি দরখাস্তকারী মামলার যথাযথ পদক্ষেপ নিতে ব্যর্থ হয়েছিলেন বলে আদালতের নিকট প্রতীয়মান হয় তবে কি আদালতে তামাদি মওকুফ করতে পারে?

সাক্ষ্য আইন, ১৮৭২

প্রশ্ন-১৫। সংজ্ঞা লিখুন ও পার্থক্য বর্ণনা করুনঃ ক) স্বীকার; খ) স্বীকারোক্তি; গ) মৃত্যুকালীন ঘোষণা।

কোন অবস্থায় পুলিশের সম্মুখে স্বীকারোক্তি সাক্ষ্য আইনে গ্রহণযোগ্য? শুধুমাত্র স্বীকারোক্তি কি অপরাধী সাব্যস্ত করার ভিত্তি হইতে পারে?

বাংলাদেশ বার কাউন্সিল আদেশ, ১৯৭২

প্রশ্ন-১৬। একজন এডভোকেট যিনি পূবালী ব্যাংকে লিগ্যাল এডভাইজার হিসাবে তাহাদের মামলা দায়ের ও পরিচালনা করিতেন? ৫০,০০০ টাকা আদায়ের একটি মোকদ্দমা ব্যাংকের পক্ষে ডিক্রি হয়। ব্যাংক এডভোকেট সাহেবকে ডিক্রি কার্যকরণের জন্য সংশ্লিষ্ট জমি ক্রয় করিতে অনুরোধ করে। তদানুযায়ী ডিক্রি কার্যকরণ নিলাম হইতে ক্যাননস অব প্রফেশনাল কনডাক্ট এন্ড এটিকেট এর চ্যাপ্টার ২ এর ৫ নং ধারা অনুযায়ী এডভোকেট সাহেব পেশাগত অসদাচরণ করিয়াছেন কিনা বর্ণনা করুন।

প্রশ্ন-১৭। বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের গঠন ও কার্যাবলী আলোচনা করুন।

বিষয় নির্বাচন করুন
দেওয়ানী কার্যবিধি সুনির্দিষ্ট প্রতিকার তামাদি আইন ফৌজদারী কার্যবিধি
দন্ডবিধি সাক্ষ্য আইন বার কাউন্সিল সমাপ্ত

Check Also

বার কাউন্সিল লিখিত পরীক্ষার প্রশ্ন ব্যাংক

বার কাউন্সিল পরীক্ষার প্রস্তুতি বাংলাদেশ বার কাউন্সিল পরীক্ষার প্রশ্ন ব্যাংক